ব্যবসায়ের জন্য পণ্য নির্বাচন করবেন কিভাবে?

ব্যবসায় পণ্য নির্বাচন কি?

কোন পণ্য এবং কেন এই ব্যবসা করতে চান তা বিভিন্ন বিসয়ের উপর ভিত্তি করে পণ্য নির্বাচন করা হয়। একটি উপযুক্ত পণ্য বা সেবার উপর সিদ্ধান্ত গ্রহণ করেই উদ্যোক্তাকে ব্যবসা শুরু করতে হবে। একটি উপযুক্ত ব্যবসা নিয়ে সিদ্ধান্ত গ্রহণের পূর্বে তাকে বিভিন্ন বিষয় বিবেচনা করতে হবে। নিম্নে প্রধান বিষয়সমূহ আলােকপাত করা হলােঃ

  • প্রেক্ষাপট এবং উদ্যোক্তার অভিজ্ঞতা
  •  প্রযুক্তির পর্যাপ্ততা এবং ব্যবসা সম্পর্কে সম্যক জ্ঞান পণ্য/সেবার বাজার পর্যাপ্ততা বিনিয়ােগ ক্ষমতা
  •  শিল্পোৎপাদন পদ্ধতিতে ব্যবহৃত যন্ত্রপাতি, কলকবজা, স্থাবর দ্রব্যসামগ্রী ইত্যাদির পর্যাপ্ততা কাঁচামালের পর্যাপ্ততা।
  •  সঠিক অবকাঠামাে সুবিধার পর্যাপ্ততা (ভূমি/স্থাপনা, শক্তি, পানি, পরিবহণ ও অন্যান্য সুবিধা)

ব্যবসায় পণ্য নির্বাচন পদ্ধতি

নির্বাচিত পণ্য বা সেবাসমূহ ভালভাবে বিশ্লেষণ করুন। মাঝেমধ্যে কিছু সময়ের জন্য বাজারে একটি নির্দিষ্ট পণ্যের অভাব দেখা দেয়। এর মানে কী এই যে আপনাকে সেই ব্যবসটিই করতে হবে? এক্ষেত্রে প্রথম কাজ হলে। অবস্থার বিশ্লেষণ করা। মনে রাখতে হবে যে, একপ স্বল্পতা অনেক কারণেই ঘটতে পারে। একজন ভাল উদ্যোক্তা একটি ব্যবসা প্রতিষ্ঠার পূর্বে এর সুবিধা অসুবিধাসমূহ পরীক্ষা করে দেখে। এটা আপনাকে চিন্তা করতে প্রশ্ন করে যে, হয়তােবা আপনি একটি ভাল ব্যবসার ধারণা পেয়েছেন। কিন্তু এ ধরণের সাময়িক ঘাটতির জন্য আপনি সহজে প্রভাবিত হবেন না। পরবর্তী তিন থেকে পাঁচ বছরে পণ্যের ভবিষ্যৎ চাহিদা ও সরবরাহের অবস্থা বিশ্লেষণ করুন।

কেবল যখন আপনি নিশ্চিত যে, স্বল্পতা অনেক সময় ধরে থাকবে এবং ব্যবসার প্রথম এক অথবা দুই বছরে মধ্যে যথেষ্ট লাভ করতে সক্ষম হবেন, একটি গ্রহণযােগ্য মূল্যের মাধ্যমে একটি মানসম্মত পণ্য উৎপাদন করতে পারবেন কেবল এ বিশ্বাস থাকলেই  আপনার এ ধরনের ব্যবসার উদ্যোগ গ্রহণ করা উচিৎ হবে।

পণ্য বা সেবা সম্পর্কে ধারণা পেতে সংশ্লিষ্ট বিভিন্ন এসোসিয়েশন, চেম্বার, বিভিন্ন জেলায় অবস্থিত শিল্প নগরী, টেকনিক্যাল ইনস্টিটিউট, গবেষণা প্রতিষ্ঠান, ব্যাংক ও আর্থিক প্রতিষ্ঠান, রপ্তানি উন্নয়নের সাথে জড়িত প্রতিষ্ঠানসহ অন্যান্য প্রতিষ্ঠানের সাথে যােগাযােগ করতে পারেন।

পণ্য নির্বাচনে বিবেচ্য বিষয়

• কাঁচামালের সহজলভ্যতা প্রক্রিয়াকরণ প্রযুক্তি সহজে বাজারে প্রবেশাধিকার সরকারীভাবে বিশেষ ইনসেনটিভ ও সুযােগ-সুবিধা

* পণ্যে বৈচিত্রময়তা

* বাজার তথ্য

* মােড়কীকরণ ও ব্রান্ডিং

* বিক্রয় পরবর্তী সেবা

আরেকটি বিষয় মনে রাখা দরকার যে, বাজারে অনেকে একই পণ্যের ব্যবসা করে থাকলে, তা এড়িয়ে চলাই ভালাে। যদি কোন উদ্যোক্তা এমন একটি পণ্যের সন্ধান করছেন যার রপ্তানি সম্ভাবনা আছে তাহলে নিমােক্ত প্রশ্নসমূহ বিবেচনা করা প্রয়োজন- 

* রপ্তানিমুখী পণ্যটির পাের্টফোলিও-তে কী কী উপাদান থাকা উচিত।

* পণ্য রপ্তানির ক্ষেত্রে প্যাকেজিং এর জন্য বিশেষভাবে কী কী প্রয়ােজন?

একটি বিশেষ দেশে পণ্য রপ্তানীর ক্ষেত্রে পণ্য তৈরীর জন্য কী স্ত্রী সামঞ্জস্যতা প্রয়ােজন? এ দেশের পণ্যের সুশীলের সাথে মিল রাখা যাবে ? রপ্তানীমুখী পণ্যের পাের্টফোলিও এর উন্নয়নে নিদ্রের চারটি বিষয় বিবেচনা করা যেতে পারে-

* বাহিরে দেশে চাহিদার অবস্থা

* অসুখ সরবরাহ ক্ষমতা।

* বাজারজাত কাজের জটিলতা

• বাজারে প্রবেশের জন্য প্রয়ােজনীয় বিনিয়ােগ

1 thought on “ব্যবসায়ের জন্য পণ্য নির্বাচন করবেন কিভাবে?”

Leave a Comment