অল্প পুজিতে ১০ টি লাভজনক ব্যবসার আইডিয়া

নতুন ব্যবসার আইডিয়া 2021

অল্প পুজিতে লাভজনক ব্যবসা

ব্যবসার প্রতি দিন দিন আগ্রহ বাড়ছে মানুষের। বিশেষ করে তরুণ-তরুণেরা এখন নিজেই কিছু করতে চায়। নিজে চাকরী না করে অন্যকে চাকরী দিতে চায়। এদের মধ্যে বেশীরভাগ সল্পপুঁজির অভাবে ব্যবসা শুরু করতে পারে না। চলুন জেনে নিই এমন কিছু ব্যবসা সম্পর্কে যা অল্পপুজিতে আপনাকে পৌঁছে দিবে সফলতার দোরগোড়ায় !

মেয়েদের ব্যবসার আইডিয়াঃ বিউটি পার্লারের ব্যবসা

বিউটি পার্লারের ব্যবসা

বিউটি পার্লার দিনদিন খুব জনপ্রিয় হচ্ছে এবং এটি খুব কম পুঁজিতে শুরু করা সম্ভব । মেয়েরা এখন বিভিন্ন অকেশনে বেড়াতে বা কোনো অনুষ্ঠানে অংশগ্রহণ করতে যাওয়া আগে বিভিন্ন ধরনের পার্লারে সাজসজ্জা করে থাকে ।

যে কারণে এই ব্যবসা পরিধি ও চাহিদা দিন দিন বেড়ে যাচ্ছে । বিউটি পার্লারের কাজ শেখার জন্য মাত্র দুই/ তিন মাস যথেষ্ট । যে কেউ প্রশিক্ষণ নিয়ে এই ব্যবসা শুরু করতে পারে ।

বিশেষ করে মেকআপ আর্টিস্ট এর চাহিদা খুব বেশি । যাদের হাতের কাজ ভালো তারা খুব সহজেই কাস্টমার আকৃষ্ট করতে পারেন এবং ভালো কাজ করলে প্রচুর কাস্টমার পাওয়া যায় । যে কেউ চাইলে বিউটি পার্লার কোর্স শিখে নিতে পারে

ফ্রিল্যান্সার ব্যবসা

ফ্রিল্যান্সার ব্যবসা

অনেকে ফ্রিল্যান্সিংকে অল্প পুজিতে লাভজনক ব্যবসা মনে করেন না । কিন্তু ফ্রিল্যান্সিং করে এখন ব্যবসা বা চাকুরির থেকেও বেশি ইনকাম করা সম্ভব, যদি আপনি ওই দক্ষতা অর্জন করতে পারেন । এর মধ্যে আছে ওয়েব ডিজাইনিং, সফটওয়্যার ডেভেলপমেন্ট, ফটো এডিটিং, কনটেন্ট রাইটিং স্কিল, ডাটা এন্ট্রিসহ অসংখ্য কাজ ।

যদি আপনি পেশাদার ফ্রিল্যান্সার হতে চান তাহলে আপনার এ বিষয়ে দক্ষতা অর্জন করতে হবে । আর আপনি যদি দক্ষতা অর্জন করতে পারেন তাহলে প্রচুর ইনকাম করতে পারবে ।

স্মার্ট ব্যবসার আইডিয়াঃ ব্লগিং বিজনেস

ব্লগিং বিজনেস

আপনার যদি কম্পিউটার এবং ইন্টারনেট সম্পর্কে ভালো জ্ঞান থাকে তাহলে আপনি ব্লগিং শুরু করতে পারেন । এখন শত শত মানুষ প্রায় বিনা পুজিতে ঘরে বসে ব্লগিং করে প্রচুর টাকা ইনকাম করছে ।

তবে আপনাকে লেখালেখির বিষয়ে দক্ষতা থাকতে হবে মাত্র দুই থেকে তিন হাজার টাকা, অর্থাৎ ডোমেইন ও হোস্টিং এর  টাকা থাকলেই আপনি এই ব্যবসা শুরু করতে পারবেন , আপনি হয়তো জানলে অবাক হবেন অনেকে ব্যবসা বা চাকুরীর পাশাপাশি ব্লগিং করছেন । একবার আপনি সফল হলে আপনি ধারণাও করতে পারবেন না যে এ থেকে কত টাকা ইনকাম করা যায় । ব্লগ ব্যবসা শুরু করার আগে আপনাকে একটা ব্লগ সাইট তৈরি করে নিতে হবে এবং যে বিষয়ে আপনার দক্ষতা আছে ওই বিষয়ে আর্টিকেল লিখতে হবে ।যেমন ধরুন আপনি ব্যবসা ভালো বোঝেন, তাহলে আপনাকে ব্যবসা বিষয়ক ব্লগ খুলতে হবে এবং সেখানে ব্যবসা করার উপায়, ব্যবসা কি এ ধরনের বিভিন্ন টিপস আর্টিকেল লিখতে হবে । আপনার ব্লগে যদি প্রচুর পরিমান ভিজিটর থাকে তাহলে ভালো পরিমাণ টাকা ইনকাম করতে পারবেন । একবার আপনি সফল হলে আপনাকে আর পিছনে ফিরে তাকাতে হবে না

সোশ্যাল মিডিয়া সার্ভিস

সোশ্যাল মিডিয়া সার্ভিস

আজকাল ডিজিটাল যুগে ইন্টারনেটে মানুষের জীবনে বিভিন্ন রকম পরিবর্তন এসেছে । সোশ্যাল মিডিয়াতে বিভিন্ন রকম ব্যবসার আইডিয়া বের করা যায় । এর মধ্যে ফেসবুক খুবই জনপ্রিয় । এছাড়া হোয়াটসঅ্যাপ, ইনস্টাগ্রাম, ইউটিউব ইত্যাদির মাধ্যমে নিজের পন্যকে মানুষের কাছে পৌঁছে দিতে হয় ।

ইউটিউব চ্যানেল: আপনি জেনে অবাক হবেন বাংলাদেশের অনেকেই আছেন যারা ইউটিউব চ্যানেল থেকে প্রতিমাসে ১ লক্ষ থেকে ১০ লক্ষ টাকা ইনকাম করছে । তাছাড়া প্রতি মাসে লক্ষ টাকা ইনকাম করে এমন চ্যানেলের সংখ্যা ১ হাজারেরও বেশি । আপনার যে বিষয়ে দক্ষতা আছে সে বিষয়ে আপনি ভিডিও টিউটোরিয়াল বানিয়ে মানুষকে দেখাতে পারেন ।

আপনি যদি ভাল মানের ভিডিও তৈরি করতে পারেন তাহলে প্রচুর ভিডিও ভিউ পাবেন এবং সেখানে গুগল এডসেন্স এর মাধ্যমে বিজ্ঞাপন দিয়ে আপনি ইনকাম করতে পারবেন ।

এখন আপনি যদি গানের, রান্না, ব্যায়াম, বা নাচের ভিডিও করতে পারেন তাহলে প্রচুর দর্শক পাবেন । তাই আপনি যদি চান এর মাধ্যমে ব্যবসা করতে তাহলে আপনাকে ধৈর্য ধরে টিউটোরিয়াল প্রস্তুত করতে হবে

ফাস্টফুডের দোকান

ফাস্টফুডের দোকান

বর্তমানে ফাস্টফুডের চাহিদা মানুষের অনেক বেড়েছে । মানুষ ফাস্টফুড খেতে ভালোবাসে কিন্তু এটি অল্প পুজিতে বেশি লাভজনক ।

আপনি যেকোনো প্রশিক্ষণ ইনস্টিটিউট থেকে  ফাস্টফুড এর উপর প্রশিক্ষণ নিতে পারেন এবং সামান্য ব্যবসার আইডিয়া থাকলেই আপনি এই ব্যবসা শুরু করতে পারবেন । বেশি জনবহুল জায়গাতে যদি আপনি আপনার খাবারের প্রদর্শন করতে পারেন তাহলে অবশ্যই আপনি এ ব্যবসাতে ভালো করতে পারেন ।

বিভিন্ন ধরনের হস্তশিল্প পণ্য

বিভিন্ন ধরনের হস্তশিল্প পণ্য

অনেকেই আছেন জন্মগতভাবে বিভিন্ন ধরনের হাতের কাজের দক্ষ । সেটা পিঠা তৈরি হতে পারে, হাতের সেলাই হতে পারে, অথবা কোন শোপিস তৈরি ওয়ালমেটসহ বিভিন্ন ধরনের পণ্য । হস্তশিল্পে দক্ষতা আছে তারা নিজস্ব পরিমন্ডল এ সকল পণ্য উৎপাদন করে স্থানীয় মার্কেটে প্রদান করতে পারেন ।

অথবা কোন অনলাইন সাইট যেমন আজকেরডিল, দারাজ বা অন্য কোন অনলাইন সাইটে আপনার পণ্য রাখতে পারেন । তারা পণ্যের অর্ডার পেলে আপনাকে জানাবে এবং সে অনুযায়ী আপনি ক্রেতাকে পণ্য ডেলিভারি করবেন । এক্ষেত্রে দারাজ বা আজকেরডিল আপনাকে পণ্যের মূল্য পরিশোধ করবে।

রেল ও বিমানের টিকিট বুকিং (Rail & Airline Ticket Booking)

বর্তমানে রেল ও বিমানের টিকেট অনলাইনে সংগ্রহ করা যায় যা অনেকে নিজে করতে পারে না। আপনি খুব সহজে এই সার্ভিস দিয়ে উপার্জন করতে পারেন আর এর জন্য একটা মোবাইল ই যথেষ্ট। পেমেন্ট এর জন্য বিকাশ বা ভিসা কার্ড ব্যবহার করা যায়।